লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি

লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি (Lakutia Zamindar Bari) দেখতে যেতে হবে বরিশাল শহর থেকে ৮ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত লাকুটিয়া গ্রামে। ১৭০০ সালে রুপচন্দ্র রায়ের পুত্র রাজতন্ত্র রায়ের হাত ধরে ইট পাথর আর সূড়কি গাথুনিতে ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছে ৪০০ বছরের পুরনো লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি। এখানে রয়েছে দৃষ্টিনন্দন একটি মঠ, সুবিশাল দীঘি, মাঠ এবং কারুকার্যমন্ডিত জমিদার বাড়ি।

জানা যায়, উনিশ শতকেও জমিদার রাজচন্দ্র রায়ের জমিদার বাড়িটি এই অঞ্চলের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের কেন্দ্রবিন্দু ছিল কিন্তু কালের আবর্তে আজ সবই শুধুই স্মৃতি। এই জমিদার পরিবারের সদস্যদের অবদানে বরিশালে নির্মিত হয়েছে রাজচন্দ্র কলেজ ও পুষ্পরানী বিদ্যালয়। বর্তমানে লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে আছে। জমিদার বাড়ির প্রায় ধ্বংসপ্রাপ্ত দ্বিতল প্রাসাধ ছাড়া লাকুটিয়া জমিদার বাড়ির অন্য সব স্থাপনার মধ্যে একাধিক ভবন নির্মাণ করা হয়েছে।

জমিদার বাড়ি কিভাবে যাবেন

বরিশাল শহরের নথুল্লাবাদ বাস স্ট্যান্ড থেকে শ্মশান মোড়ে এসে সেখান থেকে লাখুটিয়া বাবুরহাটে যাওয়ার অটোরিক্সা, টেম্পোতে চড়ে লাকুটিয়া জমিদার বাড়ি যেতে ১৫ টাকা ভাড়া লাগবে। অথবা রিসার্ভ সিএনজি/অটোরিক্সায় যেতে পারবেন লাকুটিয়া জমিদার বাড়িতে।

বরিশাল কিভাবে যাবেন

সড়কপথে ঢাকা থেকে বরিশাল যেতে প্রায় ৭-৮ ঘণ্টা সময় লাগে। রাজধানীর গাবতলি বাস টার্মিনাল হতে নিয়মিত বিরতিতে প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বিভিন্ন পরিবহণের বাস যাতায়াত করে। শাকুরা, ঈগল এবং হানিফ পরিবহনের এসি/নন-এসি বাসের জনপ্রতি টিকেটের মূল্য ৬০০ থেকে ১৩০০ টাকা (পরিবর্তনশীল)। ঢাকা থেকে বরিশালগামী বাসগুলো সাধারণত বরিশাল শহরের নতুল্লাবাদ বাস স্ট্যান্ডে গিয়ে থামে।

তবে ঢাকা-বরিশাল যাতায়াতের জন্য লঞ্চ সবচেয়ে ভাল মাধ্যম। সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল হতে রাত ৮টা-৯টার মধ্যে বরিশালগামী লঞ্চগুলো ছেড়ে যায়। লঞ্চগুলো পরদিন ভোরে বরিশাল ঘাটে পৌঁছায়। ভাল সার্ভিসের লঞ্চের মধ্যে আছে এম ভি মানামী, কুয়াকাটা ২, কীর্তনখোলা ১০, এডভেঞ্চার ১, এডভেঞ্চার ৯, সুন্দরবন ৯, সুন্দরবন ১০, সুরভী ৭, সুরভী ৮, পারাবত ৯, পারাবত ১১ সহ আরও কিছু লঞ্চ। জনপ্রতি ডেকের ভাড়া.২০০-২৫০ টাকা, সিঙ্গেল কেবিন ১২০০-১৪০০ টাকা, ডাবল কেবিনের ভাড়া ২২০০-২৫০০ টাকা। এবং ভিআইপি কেবিনের ভাড়া ৫০০০ – ৮০০০ টাকা।

কোথায় থাকবেন

বরিশালে বেশ কিছু ভালো মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে, যেগুলোতে অনায়াসে রাত্রি যাপন করতে পারবেন। আবাসিক হোটেলের মধ্যে –

  • হোটেল গ্র্যান্ড পার্ক
  • হোটেল রিচমার্ট গেস্ট হাউজ
  • হোটেল এরিনা
  • হোটেল সেডোনা
  • হোটেল রোডেলা
  • হোটেল এথেনা