রাজসিক নাটোর

রাজসিক নাটোর

অতি প্রাচীনকাল থেকেই এ জেলা রাজা-জমিদারদের জৌলুস, আভিজাত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, সভ্যতা, আচার-অনুষ্টান প্রভৃতিতে বাংলার অনন্য এক অংশ হয়ে আছে নাটোর জেলা। প্রাচীন ঐতিহ্য ও প্রত্নতাত্ত্বিক ঐশ্বর্য্য মন্ডিত বরেন্দ্র ভূমি সংলগ্ন নাটোর কবির কল্পনায় অমর হয়ে আছে কাব্যে। নারদ নদের উত্তর তীরে নাটোর শহর অবস্থিত। 

নাটোর জেলা বাংলাদেশের রাজশাহী বিভাগে অবস্থিত একটি জেলা। জেলার উত্তরে নওগাঁ জেলা ও বগুড়া জেলা, দক্ষিণে পাবনা জেলা ও কুষ্টিয়া জেলা, পূর্বে পাবনা জেলা ও সিরাজগঞ্জ জেলা এবং পশ্চিমে রাজশাহী জেলা অবস্থিত। নাটোরসহ এর পার্শ্ববর্তী বগুড়া ও সিরাজগঞ্জে অবস্থিত চলন বিল হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বিল। বাংলাদেশের মধ্যে সবচেয়ে কমবৃষ্টিপাত হয় নাটোরের লালপুর উপজেলায়।

ভারতবর্ষের ইতিহাসে নাটোর একটি বিশিষ্ট স্থানের নাম। এই নাম তার শাসকশ্রেণী এবং তার অধিবাসীদের জীবনসংগ্রাম আর সংস্কৃতির কারণেই ইতিহাস বিখ্যাত । পাঠান-মোঘল-ইংরেজ এমনকি পাকিস্তানি দুঃশাসনের ইতিহাসে যুগে যুগে শোষণ বঞ্চণা আর নির্যাতনের বিরুদ্ধে আত্ম অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে উল্লেখযোগ্য হয়ে আছে । ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৬২ এর সাম্প্রদায়িক শিক্ষা কমিশন বিরোধী আন্দোলন, ৬৬ এর ছয় দফার সমর্থনে আন্দোলন, ৬৯ এর গণঅভ্যূত্থান এবং ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে নাটোরবাসির অবদান দেশের অপরাপর জেলাগুলোর চেয়ে কম নয় । সে কারণে নাটোর ঐতিহাসিকভাবে শুধু ভারতবর্ষের ইতিহাসেই নয়, সভ্য দুনিয়ার সকল দেশে তার স্বতন্ত্র্য পরিচিতি আছে ।

নাটোরের আয়তন ১৮৯৬.০৫ বর্গ কিলোমিটার। জনসংখ্যা ১৭০৬৬৭৩ জন। উপজেলা ০৭টি; নাটোর সদর, সিংড়া, গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম, লালপুর, বাগাতিপাড়া, নলডাঙ্গা। থানা ০৭টি; পৌরসভা ০৮টি; ইউনিয়ন ৫২টি; গ্রাম ১৪৩৪টি। প্রধান নদী- পদ্মা নদী, আত্রাই, বড়াল নদী, নারদ নদী, তুলসী, নাগর নদী, নন্দকুজা, খলসাডাংগা, বারনই, গোধাই, গুনাই উল্লেখষোগ্য।

দর্শনীয় স্থান

  • নাটোর রাজবাড়ি
  • উত্তরা গণভবন (দিঘাপতিয়ার রাজবাড়ি)
  • পদ্মার চর, লালপুর
  • পদ্মার তীর, লালপুর
  • গ্রীন ভ্যালি পার্ক, লালপুর
  • শহীদ সাগর, লালপুর
  • বুধপাড়া কালীমন্দির, লালপুর
  • ভেল্লাবাড়ি মসজিদ, লালপুর
  • গোসাই আশ্রম, লালপুর
  • নাটোর রাজবাড়ী
  • চলন বিল
  • বাগাতিপাড়ার দয়ারামপুর জমিদার বাড়ি
  • চলনবিল জাদুঘর
  • হালতি বিল
  • ধরাইল জমিদার বাড়ি
  • লুর্দের রানী মা মারিয়ার ধর্মপল্লী, নাটোর

 

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে নাটোর প্রায় ১৯৬.২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সড়কপথ ও রেলপথ দুভাবেই নাটোরে পৌছানো যাবে।

বাসে করে- ঢাকার গাবতলী ও মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে নাটোর যাবার জন্য এসি-ননএসি বাস আছে। এর মধ্যে দেশ ট্রাভেলস, ন্যাশনাল ট্রাভেলস, হানিফ ইন্টারপ্রাইজ, তুহিন এলিট, গ্রামীণ ট্রাভেলস উল্লেখযোগ্য।

  • দেশ ট্রাভেলস, ☎০১৭৪৬৪৭৪৭৮০ – ৪০০ টাকা
  • ন্যাশনাল ট্রাভেলস, ☎০১৭২৭৫৪৫৪৬০ – ৪০০ টাকা
  • হানিফ ইন্টারপ্রাইজ, ☎০১৭২০২১৪৭৮৫ – ৪০০ টাকা
  • তুহিন এলিট – ৪০০ টাকা
  • গ্রামীণ ট্রাভেলস – ৪০০ টাকা
  • শ্যামলী পরিবহণ – ৪০০ টাকা

ট্রেন-ঢাকা ও নাটোরের মধ্যে প্রতিদিন প্রচুর বিলাসবহুল ইন্টারসিটি সার্ভিস রয়েছে। প্রধানরা হল পদ্মা এক্সপ্রেস, সিল্ক সিটি এক্সপ্রেস এবং ধূমকেতু এক্সপ্রেস।

  • সিল্ক সিটি এক্সপ্রেস – রাজশাহী থেকে দুপুর ২ টা এবং ঢাকা থেকে নাটোর পর্যন্ত ৮:১৫ এ।
  • পদ্মা এক্সপ্রেস – রাজশাহী থেকে সকাল ১০ টা ৪৫ মিনিটে এবং নাটোর থেকে ঢাকা পর্যন্ত সকাল ১১ টা।
  • ধূমকেতু এক্সপ্রেস – ঢাকা থেকে সকাল সাড়ে ৬ টায় চালু ট্রেন রাজশাহীতে সকাল ১২ টায় পৌঁছায় এবং সকাল ১১:২০ মিনিটে রাজশাহী হতে ছেড়ে যাওয়া ট্রেন বিকেল ৪ টা ২০ মিনিটে ট্রেন ঢাকা পৌঁছায়।
  • বর্তমানে সিল্ক সিটি এক্সপ্রেসটি রবিবারে তাদের সেবা প্রদান করছে না, পদ্মা এক্সপ্রেসে মঙ্গলবারে তাদের কোন সেবা প্রদান করছে না, এবং ধূমকেতু এক্সপ্রেস সোমবারে চলাচল বন্ধ রাখছে।
  • দীর্ঘ দূরত্বের ট্রেনের জন্য প্রধান স্টেশন রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন, যা রাজশাহী শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। কখনো কখনো বিশেষ কারনে ট্রেনের যাত্রা সময় পরিবর্তন হতে পারে।

আকাশ পথে- নাটোর হতে প্রায় ৫০ কিঃমিঃ পশ্চিমে রাজশাহীতে ‘শাহ মখদুম বিমানবন্দর’ অবস্থিত। এখানে রাজশাহী-ঢাকা- রুটে উড়োজাহাজ চলাচল করে।

  • কৃতী ব্যক্তিত্ব
  • জুনাইদ আহমেদ পলক – রাজনীতিবিদ।
  • ফরিদা পারভিন – লালন শিল্পী
  • লতিফুল ইসলাম শিবলী – গীতিকার, সুরকার, সংগীত শিল্পী, নাট্যকার, লেখক
  • আমজাদ খান চৌধুরী – ব্যবসায়ী, প্রধান নির্বাহী- প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ
  • আবু হেনা রনি – একজন স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান , অভিনেতা, উপস্থাপক ও মডেল।
  • সুলতানা ইয়াসমিন লায়লা – সঙ্গীত শিল্পী, ক্লোজআপ ওয়ান-২০১২ প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন 
  • মহারাজা জগদিন্দনাথ রায় – রাজনীতিবিদ ও সমাজ সংস্কারক; ব্রিটিশ ভারতে সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী আন্দোলনে তার অবদান ছিল।
  • রাণী ভবাণী
  • শংকর গোবিন্দ চৌধুরী(রাজনীতিবিদ)
  • স্যার যদুনাথ সরকার – সাহিত্যিক এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এর উপাচার্য ছিলেন।
  • শরৎ কুমার রায়- বাংলাদেশের প্রথম জাদুঘর বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর এর প্রতিষ্ঠাতা
  • মাদার বখশ – রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এর স্বপ্নদ্রষ্টা ও স্রষ্টা
  • মোঃ মাকসুদুর রহমান – জিন রহস্য আবিষ্কারক;
  • রাধাচরন চক্র্যবর্তী -সাহিত্যিক
  • এয়ার ভাইস মার্শাল খাদেমুল বাশার, বীর উত্তম
  • শফিয়দ্দিন সরদার(ঐতিহাসিক ঔপন্যাসিক)। নাটোর সদর।
  • প্রমথনাথ বিশী(১১ জুন ১৯০১-১০ মে ১৯৮৫) একজন লেখক,শিক্ষাবিদ ও অধ্যাপক।
  • প্রফেসর আব্দুস ছাত্তার, ডিপার্টমেন্ট অব ওরিয়েন্টাল আর্ট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
  • কার্তিক উদাস,বাউল(বাংলাদেশ বেতার,), লেখক, শিক্ষক।
  • অধ্যক্ষ এম. এ. হামিদ।
  • তাইজুল ইসলাম (ক্রিকেটার, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল)।
  • আলমগীর মহিউদ্দিন, সম্পাদক দৈনিক নয়া দিগন্ত

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


error: Content is protected !!