নীলফামারী

নীলফামারী

নীলের দেশ খ্যাত নীলফামারী জেলা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও ভূ-সংস্থানে বেশ সমৃদ্ধ যা অন্যান্য জেলা থেকে এই জেলাকে কিছুটা হলেও আলাদা করেছে। জেলার উত্তর দিক উচু ও খরা পিরিত অঞ্চল, পূর্ব দিক তিস্তার বালুকাময় এলাকা, এই উচু ও বালুময় ভূমি ধীরে ধীরে দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে উর্বর কৃষি জমিতে পরিণত হয়েছে। নীলফামারী অতীত ইতিহাসের অনেক সাক্ষী বহন করে। এ জেলায় সত্যপীরের গান, হাঁস খেলা, মাছ খেলাসহ অনেক উৎসব ও মেলার আয়োজন হয়। কৃষি প্রধান এই জেলার প্রধান শিল্প বয়ন, চাল, বাশবেত প্রভৃতি। দারোয়ানী বস্ত্র কল এ জেলার সর্ববৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান। এছাড়া উত্তরা ইপিজেড ও সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীর মত আছে শিল্প পার্ক।

নীলফামারী জেলা বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অবস্থিত ভারত সীমান্তঘেষা একটি জেলা। নীলফামারী জেলার উত্তর সীমান্তে ভারতের জলপাইগুড়ি জেলা এবং অন্য দিকে লালমনিরহাট, রংপুর, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলা অবস্থিত। ১৮৭৫ সালে মহকুমা ও পরে ১৯৮৪ সালে জেলায় উন্নীত হয়।প্রথম নির্বাচিত এবং বর্তমান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন।

রাজধানী ঢাকা থেকে উত্তর-পশ্চিম দিকে প্রায় ৪০০ কিঃমিঃ দুরে ১৫৮০.৮৫ বর্গ কিলোমিটার আয়তন বিশিষ্ট নীলফামারী জেলায় ৬ টি উপজেলা, ৪ টি পৌরসভা, মোট ৬০ টি ইউনিয়ন আছে। উপজেলাগুলো হলো- নীলফামারী সদর, ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা, কিশোরগঞ্জ, ও সৈয়দপুর উপজেলা।

লোকসংস্কৃতি হিসেবে এ জেলায়  ভাওয়াইয়া গানের বিশেষ প্রচলন রয়েছে। প্রচলিত গানগুলো কাহিনী প্রধান। বিষহরি বা মনসার গান, হুদুমদেওর গান, মহররমের জারি, বিয়ের গান বা হেরোয়া, ভাসান যাত্রা, সত্যপীরের গান ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। নয়নশরি-বোষ্টম বাউদিয়া, শীতল শরি-জানকপালা, অম্বলশরি-পিছল বাউদিয়া, পয়মাল শরি-ভোদাইমেম্বার প্রভৃতি ‘শরির গান’ বেশ জনপ্রিয়। তিনদিন থেকে ছয় দিনের নবজাতককে ঘিরে আত্মীয়-স্বজন পাড়া প্রতিবেশীরা ‘পাসটি’ নামের একটি উৎসবের আয়োজন করে থাকে। এছাড়া এ জেলায় অষ্টমঙ্গলা, ভাদরকাটানী, পৌষকাটানী প্রভৃতি সামাজিক-সাংস্কৃতিক আচার-অনুষ্ঠানের প্রচলন রয়েছে। এ জেলার প্রধান নদী: তিস্তা, যমুনেশ্বরী, বুড়ি তিস্তা, ঘাঘট ।

নীলফামারী মূলগতভাবে একটি কৃষি নির্ভর জেলা। জেলার অন্যতম প্রধান অর্থকরী ফসল ভুট্টা, ও মরিচ। জেলার ডিমলা ও জলঢাকা উপজেলার তিস্তা নদীর অববাহিকায় প্রচুর ভুট্টার চাষ হয়। ডোমার, ডিমলায় মরিচের চাষ হয়। এছাড়া আলু, ধান, গম, সরিষা, পাট, তামাক প্রচুর পরিমাণে উৎপাদিত হয়।

 

দর্শনীয় স্থান

  • নীলসাগর দীঘি
  • ধর্মপালের গড়
  • চীনা মসজিদ
  • তিস্তা ব্যারেজ ও সেচ প্রকল্প
  • কুন্দুপুকুর মাজার
  • হযরত শাহ কলন্দর মাজার
  • হরিশচন্দ্রের পাঠ
  • ময়নামতির দূর্গ
  • ভীমের মায়ের চুলা
  • চীনা মসজিদ
  • সৈয়দপুর চার্চ
  • সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা
  • দারোয়ানী টেক্সটাইল মিল
  • উত্তরা ইপিজেড
  • সৈয়দপুর বিমানবন্দর
  • ডিমলা রাজবাড়ী
  • বালাপাড়া গণকবর
  • মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন সমুহ

 

বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব

  • শাহ কলন্দর ইসলামী ব্যক্তিত্ব,
  • কাজী কাদের, সাবেক মন্ত্রী (পাকিস্তান আমল);
  • মশিউর রহমান (যাদু মিয়া) (জিয়াউর রহমান সরকারের সময় প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদায় সিনিয়র মন্ত্রী ছিলেন);
  • শহীদ জননী জাহানারা ইমাম;
  • খয়রাত হোসেন, সাবেক মন্ত্রী;
  • বিচারপতি মোস্তফা কামাল, সাবেক প্রধান বিচারপতি;
  • শফিকুল গনি স্বপন, সাবেক মন্ত্রী;
  • মহেশ চন্দ্র রায়, উত্তরবঙ্গের বিখ্যাত ভাওয়াইয়া গানের শিল্পী।
  • হরলাল রায়, ভাওয়াইয়া শিল্পী;
  • রথীন্দ্রনাথ রায়, ভাওয়াইয়া শিল্পী;
  • আসাদুজ্জামান নূর, নাট্য ব্যক্তিত্ব; বর্তমান সংসদ সদস্য এবং সাবেক মন্ত্রী ; নীলফামারী-২
  • আনিসুল হক, লেখক, নাট্যকার ও সাংবাদিক;
  • বেবি নাজনিন, কন্ঠশিল্পী।
  • বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন,উপজেলা চেয়ারম্যান, নীলফামারী সদর উপজেলা;
  • আহসান হাবিব ভাবনা, অভিনেত্রী ও মডেল

 

কিভাবে যাবেন?

সড়ক পথে- ঢাকার গাবতলী বা সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে নীলফামারী জেলা যাওয়ার জন্য এসি ননএসি বাস পাওয়া যায়। এসি বাসের মধ্যে কর্নফুলী এন্টারপ্রাইজ, নাবিল এন্টারপ্রাইজ, হানিফ এন্টারপ্রাইজ, এসআর ট্রাভেলস অন্যতম। কর্ণফুলী ও নাবিল আব্দুল্লাহপুর থেকে ছেরে গাবতলী হয়ে এবং হানিফ সায়েদাবাদ থেকে ও এসআর কল্যানপুর থেকে ছেরে যায়। বাস সার্ভিসগুলোর মটর যান ও সেবার মান অনুযায়ী ভাড়া বিভিন্ন রকম: নরমাল হলে ৩০০-৪৫০ টাকা, চেয়ার কোচ হলে ৪৫০-৫৫০ টাকা, এবং এসি কোচ হলে ৫০০-১০০০ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া বিআরটিসি বাসে করে ঢাকা, রাজশাহী, বগুড়া বা রংপুর হতে আসা যায়।

আকাশ পথে- নীলফামারী জেলার অন্তর্গত সৈয়দপুর পৌরসভায় সৈয়দপুর বিমানবন্দর রয়েছে। শুধুমাত্র অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচলের জন্য ব্যবহৃত এই বিমানবন্দরের সাথে দেশের অন্যান্য বিমানবন্দরের দৈনিক একাধিক সরাসরি ফ্লাইট বিদ্যমান।

 

খাওয়া দাওয়া

 

 

রাত্রী যাপন

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


error: Content is protected !!